ইসলামী বই : দাওয়াত-তাবলীগের পদ্ধতি ও ইসলামে বন্ধুত্ব

আল্লাহ তা’আলা মুসলিম জাতিকে এমন দায়িত্ব ও কর্তব্য দিয়ে সৃষ্টি করেছেন যে, একজন মুসলিম মাত্রই একজন দাঈ বা আল্লাহর পথে আহবানকারী। দাওয়াত তাবলীগের কাজ হচ্ছে মু’মিন জীবনে মিশন, ভালো কাজে আহবান ও খারাপ কাজে বাধা প্রদান মু’মিনের জন্য ফারয। এই ফারয কোন লক্ষ্য উদ্দেশ্যহীন ফারয নয় বরং একটি সুনির্দিষ্ট টার্গেট সামনে রেখে এ কাজ করা জরুরী। যুগ যুগ ধরে নবী রাসূলগণ এই দাওয়াতী কাজ করেছেন।

আমাদের মাঝে রাসূলগণ আর আসবে না, কিন্তু তাদের ওয়াহর যে কর্মসূচী “দাওয়াত-তাবলীগ” সেই কাজটি আমাদের প্রত্যেককেই কম বেশী করতে হবে। মহান আল্লাহ তাআলা বলেন:

كُنتُمْ خَيْرَ أُمَّةٍ أُخْرِجَتْ لِلنَّاسِ تَأْمُرُونَ بِالْمَعْرُوفِ وَتَنْهَوْنَ عَنِ الْمُنكَرِ وَتُؤْمِنُونَ بِاللَّهِ

“তোমরাই সর্বোত্তম উম্মাত মানব জাতির কল্যাণের জন্যই তোমাদের আবির্ভাব হয়েছে। তোমরা সৎ কাজের আদেশ দিবে এবং অসৎ কাজের নিষেধ করবে। (সূরা আলে ইমরান,আয়াত নং-১১০)।

এ কর্মসূচী পালন না করার ফরে বর্তমানে সমাজে অসৎ কাজের প্রবণতা বেড়ে গেছে এবং ভালো কাজ ও ভালো মানুষের সংখ্যাও কমে গেছে। একজন মুসলিম হিসাবে বন্ধুত্ত্ব স্থাপনের ক্ষেত্রেও আমাদের সতর্কতা অবলম্বন করা উচিত। অসৎ মানুষকে বন্ধু হিসাবে কখনই গ্রহণ করা যাবে না, পক্ষান্তরে ভাল মানুষ তথা ঈমানদার ব্যক্তিকে ভালোবাসার মাধ্যমে আল্লাহ এবং তার রাসূলের ভালোবাসা পাওয়া যায়। এ ব্যাপারে রাসূলুল্লাহ (সা) বলেন: আল্লাহ তাআলা যখন কোন বান্দাকে ভালোবাসেন তখন জীবরাঈল (আ.)-কে ডেকে বলেন, আমি অমুক বান্দাকে ভালবাসি সুতরাং তুমি তাকে ভালোবাসো অত:পর জীবরাঈল (আ.) তাকে ভালোবাসতে থাকেন এবং আকাশে ঘোষণা করে দেন যে, আল্লাহ তা’আলা অমুক বান্দাকে ভালোবাসেন সুতরাং তোমরা সকলে তাকে ভালোবাসো, তখন আকাশবাসীও তাকে ভালোবাসতে থাকে। (মুসলিম, হা/৪৭৬৮)।

বর্তমানে দাওয়াতী কাজ বিচ্ছিন্ন ও এর পদ্ধতি অনুযায়ী না হওয়ায় দাওয়াতী কাজ তেমন অগ্রসর হচ্ছে না। দাওয়াতী কাজ সম্পর্কে আমাদের অনেকেরই ধারণা নেই। এসম্পর্কে বিস্তারিত বইয়ের সংখ্যাও তেমন নেই। এই বইটি ছোট হলেও দাওয়াতী কাজের ধরণ ও মৌলিক বিষয় সম্পর্কে বেশ সুন্দর বই। বইয়ের শেষদিকে ইসলামে বন্ধুত্ব শিরোনামে বেশ সুন্দর প্রবন্ধ সংযোজিত হয়েছে। এটি আমাদের বন্ধু নির্বাচনে ভালো নির্দেশনা দিবে বলে আশা করি।

Dawat of Tablig er Poddhoti

বইটির উল্লেখযোগ্য আলোচ্য বিষয়সমূহের অন্যতম হলো :

  • আমাদের দায়িত্ব ও কর্তব্য
  • দাওয়াত, তাবলীগ ও দা’ঈ অর্থ কী ?
  • দাওয়াত, তাবলীগের গুরুত্ব এবং তাৎপর্য
  • তাবলীগ সম্পর্কে ভ্রান্ত ধারণা
  • দাওয়াতী কাজ না থাকায় সমাজে যা হচ্ছে
  • এগুলো কি চিন্তার বিষয় নয় ?
  • বর্তমান মুসলিম সমাজে মারাত্মক ভ্রান্ত ধারণা
  • ঈমান, ইসলাম ও দাওয়াতের প্রতিবন্ধকসমূহ
  • দাওয়াত ও তাবলীগের কাজ সকলকেই করতে হবে।
  • দাওয়াতী কাজ না করার ভয়াবহ পরিণাম
  • দাওয়াত ও তাবলীদের মুল ভিত্তি
  • তাবলীগ কাদের নিকট করতে হবে ?
  • দাঈ বা আহবানকারীর অপরিহার্য গুণাবলীসমূহ
  • দাওয়াতদাতার মূল বক্তব্য ও কাজ
  • সর্বাবস্থায় দাওয়াতী কাজ চালিয়ে যেতে হবে
  • দাওয়াত ও তাবলীগের কাজে কোন ব্যর্থতা নেই
  • দাওয়াতদাতার আমালে সতর্কতা
  • দাওয়াত ও তাবলীগী কাজের নীতিমালা
  • টার্গেটভিত্তিক ও সামষ্টিক দাওয়াতী কাজ
  • টার্গেটভিত্তিক দাওয়াতী কাজের ফর্মুলা
  • সামষ্টিক দাওয়াতী কাজের ফর্মূলা
  • দাওয়াত দেয়ার সওয়াব
  • দাওয়াতদাতার মর্যাদা
  • আহবান
  • বন্ধুত্ব কী ও কেনো ?
  • বন্ধু নির্বাচন প্রভৃতি

এক নজরে বইটি:

দাওয়াত-তাবলীগের পদ্ধতি, প্রতিবন্ধকতা ও ইসলামে বন্ধুত্ব

সংকলনে: হাফিয মুহাম্মাদ আইয়ূব বিন ইদু মিয়া

পরিবেশনায়: আরিফ আরাফাত প্রকাশনী ঢাকা

পৃষ্ঠা: ৩২

সাইজ : ১.২০ মেগাবাইট

ডাউনলোড

PC User

Mobile User

এ সম্পর্কিত আরও পোস্ট

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও দেখুন
Close
Back to top button
kiw kow kan