ডালিম চোর এবং আরবিবিদ আল আসমা’য়ীঃ

ডালিম চোর এবং আরবিবিদ আল আসমা’য়ীঃ (৭৪০- ৮৩১খৃ)
মাথায় ডালিমের ঝুড়ি নিয়ে এক ফেরি ওয়ালী পথ চলছিল, জনৈক ব্যক্তি পেছন থেকে একটি ডালিম উঠিয়ে নিল,কিন্তু মহিলা টের পায়নি, বিখ্যাত সাহিত্যিক আল আসমা’য়ী বিষয়টি লক্ষ্য করেন এবং লোকটিকে ফলো করতে থাকেন, পথিমধ্যে এক ভিক্ষুক দেখে লোকটি সেই ডালিমটি দান করে,আসমা’য়ী অবাক হয়ে জিজ্ঞেস করেন কি ব্যাপার!তুমি চুরি করা ডালিমটি ফকীরকে দান করলে ? আমি তো ভেবেছিলাম তুমি ক্ষুধার্ত, তাই চুরি করেছ।

লোকটি মাথা ঝুঁকিয়ে বুদ্ধি-দীপ্ত ভঙ্গিতে বললো শাইখ! আমি ব্যবসা করি।
আসমা’য়ী জানতে চাইলেন,কিসের ব্যবসা? একটু বুঝিয়ে বল তো?
লোকটি বলল,দেখুন আমি ডালিম চুরি করে একটি পাপ করেছি এবং এটি দান করে দশ নেকী করলাম। দশ থেকে এক বিয়োগ করলে নয় থাকে, এভাবে ই আমি পাপ -পুন্যের ব্যবসা করে থাকি, বুঝলেন বিষয়টা?
আসমা’য়ী বেকুফ লোকটিকে লক্ষ্য করে বললেনঃ
শোন! আল্লাহ পবিত্র, তিনি পবিত্র জিনিস ছাড়া কিছুই গ্রহণ করেন না।
বর্তমান সমাজে ও এমন বেকুফ ব্যবসায়ীর সংখ্যা কম না।সারা জীবন আকাম কুকাম করে জমানো টাকা দিয়ে হাজ্জ করেন, দান খয়রাত করেন , এবং সমাজের জন্য বুদ্ধি দীপ্ত উচ্চারণে বড় গলায় নসীহত উদগীরণ করে থাকেন, সর্বোপরি বে ইলম লোক,কিন্তু ফতোয়াবাজিতে পটু,এরাই সমাজ জামায়াত বিনষ্টের মূল হোতা।
আল্লাহ আমাদের সবাইকে সঠিক বুঝ দান করুন ,আমীন।

এ সম্পর্কিত আরও পোস্ট

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও দেখুন
Close
Back to top button
kiw kow kan