ইসলামিক গল্প

শুধু আল্লাহর জন্য

বনী ইসরাইলে একজন ধার্মিক মানুষ ছিলেন, যিনি সবমসয় আল্লাহ্‌র (সুবহানাহু তা’আলা) ইবাদতে ব্যস্ত থাকতেন।

একদল লোক তাঁর কাছে এসে জানাল যে, কাছেই বসবাস করা এক সম্প্রদায় একটি গাছ পূজা করে।

খবরটি তাঁকে বিচলিত করল, এবং তিনি একটি কুড়াল কাঁধে নিয়ে গাছটি কেটে ফেলার জন্য বেড়িয়ে পড়লেন।

পথিমধ্যে, শয়তান একজন বৃদ্ধ ব্যক্তির বেশে তার সাথে দেখা করল এবং জিজ্ঞেস করল সে কোথায় যাচ্ছে।

তিনি বললেন তিনি একটি নির্দিষ্ট (যে গাছ পূজা করা হয়) গাছকে কাটতে যাচ্ছেন।

শয়তান বলল, “তোমার ঐ গাছ সম্পর্কে চিন্তা করার দরকার নেই, তুমি নিজের ইবাদত নিয়েই থাক এবং তোমার ইবাদতের সাথে সংশ্লিষ্ট নয় এমন কিছুর জন্য তা ত্যাগ করা উচিত হবে না।”

“এটাও ইবাদত”, আবেদ প্রত্যুতর দিলেন।

তখন শয়তান তাঁকে গাছটি কাটতে বাঁধা দেয়ার চেষ্টা করল, এবং এর ফলে দুজনের মধ্যে লড়াই হল, যাতে আবেদ শয়তানকে পরাজিত করলেন।

নিজেকে সম্পূর্ণ অসহায় বুঝতে পেরে, শয়তান নিজেকে ছেড়ে দেয়ার জন্য মিনতি করল, এবং যখন আবেদ তাকে ছেড়ে দিলেন,

সে আবার বলল, “আল্লাহ্‌ এই গাছটা কেটে ফেলা তোমার জন্য আবশ্যিক করে দেননি। তুমি এই গাছটি না কাটলে কিছুই হারাবে না। যদি গাছটি কাটার দরকার হত, আল্লাহ্‌ তাঁর অনেক নবীর মধ্যে একজনের দ্বারা এই কাজটি করিয়ে নিতেন।” আবেদ আবার গাছটি কাটতে উদ্যত হলেন। তাদের মধ্যে আবার লড়াই হল এবং আবেদ আবার শয়তানকে পরাজিত করলেন।

“শোন” শয়তান বলল, “আমি একটি প্রস্তাব দিচ্ছি যা তোমার জন্য সুবিধাজনক হবে।”

আবেদ রাজি হলেন, এবং শয়তান বলল, “তুমি একজন দরিদ্র মানুষ, এই পৃথিবীতে বোঝা স্বরূপ। যদি তুমি এই কাজ থেকে দূরে থাক, আমি তোমাকে প্রতিদিন তিনটি স্বর্ণমুদ্রা দেব। তুমি প্রতিদিন সেগুলো তোমার বালিশের নিচে পাবে। এই অর্থ দ্বারা তুমি নিজের প্রয়োজন পূরণ করতে পারবে, তোমার প্রতিবেশীর উপকার করতে পারবে, অভাবগ্রস্থকে সাহায্য করতে পারবে, এবং আরও অনেক ভাল ভাল কাজ করতে পারবে। গাছটিকে কাটলে মাত্র একটি ভাল কাজ হবে, যা শেষ পর্যন্ত কোন কাজে আসবে না কারণ লোকেরা আরেকটি গাছ নির্দিষ্ট করে নেবে।”

প্রস্তাবটি আবেদের পছন্দ হল, এবং তিনি তা গ্রহণ করলেন। তিনি পরপর দুইদিন স্বর্ণমুদ্রা পেলেন, কিন্তু তৃতীয় দিন সেখানে কিছুই ছিল না।

তিনি রাগান্বিত হলেন, কুড়ালটা তুলে নিয়ে গাছটি কাটার জন্য রওনা হলেন।

পথিমধ্যে বৃদ্ধের বেশে শয়তান তাঁর সাথে আবার দেখা করল এবং জিজ্ঞেস করল সে কোথায় যাচ্ছে। “গাছটি কাটার জন্য”, চিৎকার করে আবেদ জবাব দিলেন।

“আমি তোমাকে তা করতে দেব না,” শয়তান বলল। দুজনের মধ্যে আবার লড়াই হল কিন্তু এইবার শয়তান প্রাধান্য বিস্তার করল এবং আবেদকে পরাজিত করল।

আবেদ তাঁর পরাজয়ে বিস্মিত হলেন, এবং শয়তানকে বিজয়ী হবার কারণ জিজ্ঞেস করলেন।

শয়তান জবাব দিল, “প্রথমে, তোমার রাগ ছিল একমাত্র আল্লাহ্‌র সন্তুষ্টির জন্য, এবং সেইকারণে সর্বশক্তিমান আল্লাহ্‌ আমাকে পরাজিত করার জন্য তোমাকে সাহায্য করেছিলেন, কিন্তু এখন তোমার রাগের একাংশ ছিল স্বর্ণমুদ্রার কারণে এবং সে কারণে তুমি পরাজিত হলে।”

সূত্রঃ ইমাম গাজ্জালী (রাহিমাহুল্লাহ) এর বই “ইহইয়া-উল উলুম উদ দ্বীন” থেকে।

মতামত দিন