জামাতে নামাজের সময় ইমাম উচ্চ আওয়াজে আর মুক্তাদিগণ নিম্ন আওয়াজে তাকবির দেওয়ার দলিল

প্রশ্ন: জামাতে নামাজের সময় ইমাম উচ্চ আওয়াজে আর মুক্তাদিগণ নিম্ন আওয়াজে তাকবির বলে- এর দলিল কোথায় পাব? কেননা কিছু মানুষকে বলতে শুনা যাচ্ছে যে, এ মর্মে নাকি কোন দলিল নাই!
▬▬▬▬▬●●●▬▬▬▬▬
উত্তর:
এর দলিল নিম্নোক্ত হাদিসটি:

عَنْ جَابِرٍ رضي الله عنه قَالَ : ” صَلَّى بِنَا رَسُولُ اللهِ صَلَّى اللهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ ، وَأَبُو بَكْرٍ خَلْفَهُ ، فَإِذَا كَبَّرَ رَسُولُ اللهِ صَلَّى اللهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ كَبَّرَ أَبُو بَكْرٍ لِيُسْمِعَنَا ” رواه مسلم /413
জাবির রা. হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, রসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম আমাদেরকে সালাত পড়াচ্ছিলেন। আবু বকর ছিলেন তাঁর পেছনে। রসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তাকবির দিলে আবু বকর রা.ও তাকবির দিতেন আমাদেরকে শুনানোর জন্য।” [সহীহ মুসলিম, হা/ ৪১৩]
এ হাদিস থেকে স্পষ্ট যে, ইমাম সরবে আর মুক্তাদিগণ নিরবে তাকবির বলবে। কেননা হাদিসে দেখা যাচ্ছে, রসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম সরবে তাকবির দিয়েছেন আর সে তাকবির শুনে আবু বকর রা. তাকবির দিয়েছেন পেছনের মুক্তাদিদের কে শুনানোর জন্য।
মুক্তাদিগণ সবাই যদি উচ্চ আওয়াজে তকবির বলতেন তাহলে পেছনের মুসল্লিদেরকে শুনানোর জন্য আবু বকর রা. এর জোরে তাকবির দেওয়ার প্রয়োজন পড়ত না।
সুতরাং ইমাম উচ্চস্বরে তাকবির দিবে এবং মুক্তাদিগণ সাধারণ অবস্থায় নিম্নস্বরে তাকবির দিবে-এ হাদিস তার প্রমাণ।
উল্লেখ্য যে, এটি ছিল রসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম মৃত্যু রোগে আক্রান্ত অবস্থায় ইমাম হয়ে সালাত আদায়ের ঘটনা।
উত্তর প্রদানে:
আব্দুল্লাহিল হাদী বিন আব্দুল জলীল মাদানি
দাঈ জুবাইল দাওয়াহ এন্ড গাইডেন্স সেন্টার, সৌদি আরব

এ সম্পর্কিত আরও পোস্ট

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
slot online skybet88 skybet88 skybet88 mix parlay skybet88 rtp slot slot bonus new member skybet88 mix parlay slot gacor slot shopeepay mix parlay skybet88 slot bonus new member