সিয়াম

সিয়ামের আদব, করণীয় ও বর্জণীয় (পর্ব: ৭)

আজকের পর্ব

সিয়ামের হিকমত ও ফায়দা প্রসঙ্গে

সিয়াম একটি ইবাদত, বান্দা সওমের মাধ্যমে নিজের স্বভাবজাত বস্তু ও অভ্যাস যেমন পানাহার ও সহবাস ত্যাগ করে আল্লাহর নৈকট্য অর্জন করতে সচেষ্ট হয়, তার সন্তুষ্টি ও জান্নাত লাভের আশায়। (বান্দা যদি পানাহার ত্যাগ করে সাওম পালন করে, তবে) এর দ্বারা প্রমাণিত হবে যে, আল্লাহর পছন্দ ও আখেরাত তার নিকট তার নিজের পছন্দ ও দুনিয়ার চেয়ে অধিক প্রিয় ও অগ্রাধিকারযোগ্য।

বান্দা যদি যথাযথভাবে সিয়াম পালনে সচেষ্ট হয়, তাহলে সে তাকওয়া অর্জন করে ধন্য হয়। আল্লাহ তা‘আলা বলেন:
“হে মুমিনগণ, তোমাদের উপর সিয়াম ফরয করা হয়েছে, যেভাবে ফরয করা হয়েছিল তোমাদের পূর্ববর্তীদের উপর। যাতে তোমরা তাকওয়া অবলম্বন কর”। [সূরা আল-বাকারা: (১৮৩)]
সিয়ামের মূল লক্ষ্য হচ্ছে আল্লাহর তাকওয়া অর্জন করা, অর্থাৎ তার নির্দেশ পালন করা ও তার নিষেধ থেকে বিরত থাকা। সওম দ্বারা সিয়াম পালনকারীকে পানাহার ও স্ত্রী সহবাস থেকে বিরত রেখে শাস্তি দেয়া উদ্দেশ্য নয়।

মিথ্যা কথা: অর্থাৎ প্রত্যেক হারাম কথা, যেমন মিথ্যা, গিবত, গালি ও অন্যান্য হারাম বাক্যালাপ।
মিথ্যা কথা মোতাবেক আমল: অর্থাৎ প্রত্যেক হারাম কর্ম, যেমন মানুষের উপর জুলম করা, খিয়ানত করা, ধোঁকা দেয়া, প্রহার করা ও তাদের সম্পদ আত্মসাৎ করা ইত্যাদি, অনুরূপ হারাম গান-বাদ্য ও মিউজিক শ্রবণ করা।

মূর্খতা: বেকুবি এবং কথা ও কর্মে শালীনতা পরিহার করা। যদি সওম পালনকারী এ আয়াত ও হাদিস অনুযায়ী আমল করে, তাহলে তার সওম হবে আত্মশুদ্ধিমূলক, চরিত্র গঠনকারী ও তার জন্য সঠিক পথের দিশারী। রমযান তার চরিত্র, স্বভাব ও নফসের উপর প্রভাব সৃষ্টি করতে সক্ষম হবে।

সওমের ফলে বিত্তবানরা তাদের উপর আল্লাহর নিয়ামতের মূল্য বুঝতে পারেন, যেমন আল্লাহ তাদেরকে তাদের চাহিদা মোতাবেক পানাহার ও বিবাহের সুযোগ দান করেছেন। তারা আল্লাহর এ নিয়ামতের শোকর আদায় করে তাদের গরিব ভাইদের কথা স্মরণ করবে, যারা তাদের ন্যায় চাহিদা পূরণ ও বিবাহে সক্ষম নয়, তাদের উপর তারা দান ও অনুগ্রহের হাত বাড়িয়ে দেবে।

প্রবৃত্তিকে নিয়ন্ত্রণ ও তার উপর কর্তৃত্ব প্রতিষ্ঠার অনুশীলন করা। কারণ নফসের দুনিয়া ও আখেরাতের কল্যাণ এতেই নিহিত। সিয়াম পালনকারী সওমের মাধ্যমে নিজেকে পশুবৎ স্বভাব থেকে মুক্ত রাখতে সক্ষম হয়।
কম খানা-পিনার ফলে পাকস্থলী কিছু সময়ের জন্য অবসর গ্রহণ করে, যা শরীরের ক্ষতিকর ও বিষাক্ত পদার্থ বের হওয়ার জন্য সহায়ক।

আগামী পর্বে মুসাফির ও অসুস্থ ব্যক্তিদের সওম প্রসঙ্গে আলোচনা হবে ইনশা আল্লাহ ।

সূত্র

মতামত দিন