যে গাঁয়ে ২০ বছর ধরে কোনো সিগারেট বিক্রি হয় না!

এক গাঁ বা গ্রামে ২০ বছর ধরে কোনো সিগারেট বিক্রি হয় না। যে সময়টাতে মুসলিম বিভিন্ন দেশে এমনকি আরবের পথেঘাটে পর্যন্ত সিগারেট একটা স্বাভাবিক ব্যাপার হয়ে উঠেছে তখন এমন খবর নিশ্চয়ই পিলে চমকে ওঠার ন্যায়। গ্রামটির বাসিন্দাদের মাদকের সঙ্গেও কোনোরূপ সম্পর্ক নেই। আবূদ দারদা রদিয়াল্লাহু আনহু বলেন,
أَوْصَانِي خَلِيلِي صَلَّى اللهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ: «لَا تَشْرَبِ الْخَمْرَ، فَإِنَّهَا مِفْتَاحُ كُلِّ شَرٍّ
‘’আমার বন্ধু (নবী) সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন, “তুমি মদ পান করো না, কেননা এটা সকল খারাপের চাবি।’’ [১]

গ্রামটি পাকিস্তানের ফয়সালাবাদে অবস্থিত। গ্রামের ঘরগুলো থেকে বাইরে গানের আওয়াজ এলে নসীহত করা হয়। গ্রামের বিয়েগুলোতেও কোনো গানবাজনা হয় না, কেউ দুঃসাহস দেখালে পুরো গ্রাম মিলে সেই বিয়ে বয়কট করে। যেমনটি আল্লাহর রসূল সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন,
مَنْ رَأَى مِنْكُمْ مُنْكَرًا فَلْيُغَيِّرْهُ بِيَدِهِ. فَإِنْ لم يستطع فبلسانه. ومن لَمْ يَسْتَطِعْ فَبِقَلْبِهِ. وَذَلِكَ أَضْعَفُ الإِيمَانِ
“তোমাদের মধ্যে যে ব্যক্তি কোনো ঘৃণ্য কাজ দেখে সে যেন তার হাত দ্বারা তা পরিবর্তন করে। যদি তার সামর্থ্য না থাকে তাহলে তার জিহ্বা দ্বারা আর তাতেও যদি তার সামর্থ্য না থাকে তাহলে তার অন্তর দ্বারা যেন পরিবর্তন করে। আর এটাই সবচেয়ে দুর্বলতর ঈমান।” [২]
.
যাইনাব বিনতু জাহাশ রদিয়াল্লাহু আনহুন্না বলেন,
اسْتَيْقَظَ النَّبِيُّ صَلَّى اللَّهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ مِنَ النَّوْمِ مُحْمَرًّا وَجْهُهُ يَقُولُ: (لَا إِلَهَ إِلَّا اللَّهُ، ‌وَيْلٌ ‌لِلْعَرَبِ مِنْ شَرٍّ قَدِ اقْتَرَبَ، فُتِحَ الْيَوْمَ مِنْ رَدْمِ يَأْجُوجَ وَمَأْجُوجَ مِثْلُ هَذِهِ). قِيلَ: أَنَهْلِكُ وَفِينَا الصَّالِحُونَ؟ قَالَ: (نَعَمْ، إِذَا كثر الخبث)
“একবার নবী সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম লাল ঝলসানো চেহারা নিয়ে ঘুম থেকে জাগলেন এবং বলতে লাগলেন, ’লা- ইলা-হা ইল্লাল্লাহ্’ (আল্লাহ ব্যতীত সত্য কোনো মা’বূদ নেই)। আসন্ন এক দুর্যোগে আরব ধ্বংস হয়ে যাবে। ইয়াজূজ-মা’জূজের প্রাচীর আজ এতোটুকু পরিমাণ খুলে গেছে। জিজ্ঞাসা করা হলো, “আমরা কি ধ্বংস হয়ে যাবো অথচ আমাদের মাঝে নেককার লোকও থাকবে?” নবী সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বললেন, “হ্যাঁ, যখন পাপাচার বেড়ে যাবে।” [৩]
.
এ গ্রামে কবর সব কাঁচা। এ তো নবী সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের নির্দেশের পূর্ণ বাস্তবায়ন। আবূল হাইয়াজ আল-আসাদী রহিমাহুল্লাহ হতে বর্ণিত,
قَالَ لِي عَلِيُّ بْنُ أَبِي طَالِبٍ: أَلَا أَبْعَثُكَ عَلَى مَا بَعَثَنِي عَلَيْهِ رَسُولُ اللَّهِ صَلَّى اللَّهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ؟ أَنْ لَا تَدَعَ تِمْثَالًا إِلَّا طَمَسْتَهُ. وَلَا ‌قَبْرًا ‌مُشْرِفًا إِلَّا سَوَّيْتَهُ
“আলী ইবনু আবী তালিব (রদিয়াল্লাহু আনহু) আমাকে বললেন, “আমি কি তোমাকে ঐ কাজে পাঠাবো না যে কাজে আল্লাহর রসূল সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম আমাকে পাঠিয়ে ছিলেন? কাজটা হলো কোনো প্রতিকৃতিকে না মুছে রেখে দেবে না এবং কোনো উচু কবরকে সমান না করে ছাড়বে না।” [৪]
.
এ গ্রামে কোনো ভিক্ষুকও নেই। সবাই কাজ করে খান। প্রিয় নবীজি সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন,
لَأَنْ يَأْخُذَ أَحَدُكُمْ حَبْلَهُ فَيَأْتِيَ بِحُزْمَةِ الحَطَبِ عَلَى ظَهْرِهِ فَيَبِيعَهَا فَيَكُفَّ اللَّهُ بِهَا وَجْهَهُ خَيْرٌ لَهُ مِنْ أَنْ يَسْأَلَ النَّاسَ أَعْطَوْهُ أَوْ مَنَعُوهُ
“তোমাদের মধ্যে কারো রশি নিয়ে কাঠ সংগ্রহ করে তা তার পিঠে বয়ে আনা এবং এরপর তা বিক্রি করা , ফলে আল্লাহ তার চেহারাকে এর দ্বারা রক্ষা করেন, এটি তার জন্য উত্তম মানুষের কাছ থেকে ভিক্ষা করার চেয়ে, চাই তারা তাকে দিক বা মানা করুক।” [৫]
.
গ্রামের সব বিয়ে মাসজিদে অনুষ্ঠিত হয়। এক হাদীস বলছে,
«أَعْلِنُوا هَذَا النِّكَاحَ، وَاجْعَلُوهُ فِي المَسَاجِدِ
“তোমরা এই বিবাহের এলান (ঘোষণা) দাও এবং এর মজলিস মাসজিদে করো।” [৬]
হাদীসটি সনদগতভাবে যঈফ হলেও অধিকাংশ ফকীহগণ এ হাদীসের উপরে ভিত্তি করেই বারাকাহ লাভের উদ্দেশ্যে মাসজিদে বিয়ের আকদ করানোকে মুস্তাহাব বলেছেন। [৭]
.
গ্রামে সলাতের ব্যাপারে সবাই সিরিয়াস। বলা যায় গ্রামের লোকদের এতো পরহেযগারিতা যেন এই সলাতের মাঝেই লুকিয়ে আছে। মহান রবের ঘোষণা-
ٱتۡلُ مَآ أُوحِيَ إِلَيۡكَ مِنَ ٱلۡكِتَٰبِ وَأَقِمِ ٱلصَّلَوٰةَۖ إِنَّ ٱلصَّلَوٰةَ ‌تَنۡهَىٰ عَنِ ٱلۡفَحۡشَآءِ وَٱلۡمُنكَرِۗ وَلَذِكۡرُ ٱللَّهِ أَكۡبَرُۗ وَٱللَّهُ يَعۡلَمُ مَا تَصۡنَعُونَ
“আপনি তা তিলাওয়াত করুন কিতাব থেকে আপনার প্রতি যা ওহী করা হয় এবং সলাত কায়েম করুন। নিশ্চয়ই সলাত অশ্লীল ও ঘৃণ্য কাজ থেকে বিরত রাখে। আর আল্লাহর স্মরণই তো সবচেয়ে বড়। আর আল্লাহ জানেন তোমরা যা করো।” [৮]
.
গ্রামে ৯০ বছরের পুরোনো একটি মাদ্‌রাসা আছে। গ্রামে দীনের দাওয়াত, তালিম, তারবিয়াত, সৎকাজে আদেশ এবং অসৎকাজে নিষেধের দায়িত্ব এ মাদ্‌রাসা হতেই আঞ্জাম দেয়া হয়। রব্বুল ‘আলামীন বলছেন,
فَلَوۡلَا ‌نَفَرَ مِن كُلِّ فِرۡقَةٖ مِّنۡهُمۡ طَآئِفَةٞ لِّيَتَفَقَّهُواْ فِي ٱلدِّينِ وَلِيُنذِرُواْ قَوۡمَهُمۡ إِذَا رَجَعُوٓاْ إِلَيۡهِمۡ لَعَلَّهُمۡ يَحۡذَرُونَ
“অতঃপর তাদের প্রত্যেক বড় দল হতে একটি উপদল কেন বের হয় না, যাতে তারা দীনের ভেতরের গভীর জ্ঞান অর্জন করতে পারে এবং তাদের কওমকে ভীতিপ্রদর্শন করতে পারে যখন তারা তাদের কাছে ফিরে আসবে, যাতে করে তারা সাবধান হয়।” [৯]
.
গ্রামের এই সার্বিক চিত্রায়ন [১০] যেন কুরআনের সেই বাণী মনে করিয়ে দেয়, যেখানে দয়াময় রব বলেছেন,
وَلَوۡ أَنَّ أَهۡلَ ٱلۡقُرَىٰٓ ءَامَنُواْ وَٱتَّقَوۡاْ لَفَتَحۡنَا عَلَيۡهِم بَرَكَٰتٖ مِّنَ ٱلسَّمَآءِ وَٱلۡأَرۡضِ
“আর জনপদগুলোর অধিবাসীরা যদি ঈমান আনতো এবং তাকওয়া অবলম্বন করতো তবে অবশ্যই আমরা তাদের জন্য আসমান ও যমীনের বরকতসমূহ উন্মোচন করে দিতাম।” [১১]
.
.
[১] আস-সুনান, ইবনু মাজাহ, ৩৩৭১; আলবানীর মতে সহীহ এবং শুয়াইব আরনাঊতের মতে হাসান লিগইরিহী
[২] আস-সহীহ, মুসলিম, ৪৯
[৩] আস-সহীহ, বুখারী, ৭০৫৯
[৪] আস-সহীহ, মুসলিম, ৯৬৯
[৫] আস-সহীহ, বুখারী, ১৪৭১
[৬] আস-সুনান, তিরমিযী, ১০৮৯; এলানের অংশ ব্যতীত বাকী অংশ শাইখ আলবানীর মতে যঈফ; ইমাম তিরমিযী সহ অন্যান্য মুহাদ্দিসও বিভিন্ন আপত্তি তুলেছেন
[৭] আল-মাওসূ’আতুল ফিকহিয়্যাহ, কুয়েত, ৩৭/২১৪
[৮] সূরাতুল আনকাবূতঃ ৪৫
[৯] সূরাতুত তাওবাহঃ ১২২
[১০] গ্রামের যাবতীয় তথ্যের সূত্রঃ ইউটিউব চ্যানেলঃ UrduPoint.com, শিরোনামঃ Pakistani Village Jahan Koi Be Namazi Nae, Cigarette Nae, Masjid Me Nikah & Qabrain Bhi Ek Jesi Hain
[১১] সূরাতুল আ’রাফঃ ৯৬

এ সম্পর্কিত আরও পোস্ট

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
slot online skybet88 skybet88 skybet88 mix parlay skybet88 rtp slot slot bonus new member skybet88 mix parlay slot gacor slot shopeepay mix parlay skybet88 slot bonus new member