প্রশ্ন ও উত্তর ফাতওয়া

শিশুদের পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা ও ওযু নষ্ট হওয়া

প্রশ্ন: শিশুকে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা করার সময় যদি হাতে মল-মূত্র লাগে বা তার লজ্জাস্থানে হাত লাগে তাহলে কি ওযু নষ্ট হয় যাবে?
উত্তর :
শিশুকে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করার সময় যদি তার পেশাব-পায়খানায় হাতে লাগে তাহলে ওযু নষ্ট হবে না। শরীরে নাপাকী লাগলে তাতে পবিত্রতা নষ্ট হয় না। সালাতের পূর্বে তা ভালোভাবে ধুয়ে নেয়াই যথেষ্ট।
তবে শিশুর লজ্জাস্থান স্পর্শ করলে ওযু নষ্ট হবে কি না এ বিষয়ে দ্বিমত রয়েছে।
এ ব্যাপারে সউদী আরবের সর্বোচ্চ ওলামা পরিষদকে জিজ্ঞেস করা হলে তারা বলেন:
“কোন কিছুর আড়/প্রতিবন্ধক ছাড়া যদি সরাসরি লজ্জাস্থানে হাত লাগে তাহলে ওযুু নষ্ট হয় যাবে। চাই তা বড় মানুষের হোক বা শিশুর হোক। কেননা, সহীহ হাদীসে এসেছে:
من مس فرجه فليتوضأ
“যে ব্যক্তি তার লজ্জাস্থান স্পর্শ করল সে যেন ওযু করে নেয়।” নিজের লজ্জাস্থান স্পর্শ করার বিধান অন্যের লজ্জাস্থান স্পর্শ করার মতই। (ফতোয়া লাজনাহ দায়েমা ২/২৬৫)
এ মর্মে আরও একাধিক হাদীস বর্ণিত হয়েছে।
তবে অন্য একদল আলেম (যেমন ইবনে উসাইমীন রহ.) বলেন, কেউ যদি উত্তেজনা বশত: লজ্জাস্থান স্পর্শ করে তাহলেই কেবল ওযু নষ্ট হবে; অন্যথায় নয়। কিন্তু শিশুর পরিচ্ছন্নতার সময় যেহেতু এমন মনোভাব থাকে না তাই তাতে ওযু নষ্ট হবে না।
যাহোক, এমতাবস্থায় পুনরায় ওযু করাই অধিক নিরাপদ। আল্লাহু আলাম।
——————-
উত্তর প্রদানে:
আব্দুল্লাহিল হাদী বিন আব্দুল জলীল
(লিসান্স, মদীনা ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, সউদী আরব)
দাঈ, জুবাইল দাওয়াহ এন্ড গাইডেন্স সেন্টার, সউদী আরব।

মতামত দিন