তাবলীগ

দক্ষিণ আফ্রিকার নও মুসলিম ক্রিকেটার পারনেল

ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছেন দক্ষিণ আফ্রিকা জাতীয় ক্রিকেট দলের পেসার ওয়েন পার্নেল। ব্যক্তিগত গবেষণা ও ভাবনা থেকেই ইসলাম ধর্ম গ্রহণের উদ্বুদ্ধ হন বলে তিনি জানান।

ইসলাম ধর্মগ্রহণের সত্যতা নিশ্চিত করে বৃহস্পতিবার এক বিবৃতিতে তিনি জানান, গত জানুয়ারি থেকেই ইসলামের প্রতি এক ধরনের অনুরাগ জন্মেছিল তার। নতুন ধর্ম গ্রহণ করার পর পার্নেল তার নাম পরিবর্তন করে ওয়ালিদ রেখেছেন। যার অর্থ দাঁড়ায় ‘সদ্য ভূমিষ্ঠ পুত্র সন্তান’।

পোর্ট এলিজাবেথে জন্ম নেয়া পার্নেল বলেছেন, “যদিও আমি এখনো ইসলামি নাম চূড়ান্ত করিনি তবুও আমি ওয়ালিদ নামটি বিবেচনা করছি, যার অর্থ সদ্যজতা ভূমিষ্ঠ পুত্র সন্তান। কিন্তু আমার নাম এখনো ওয়েন ডিলন পার্নেল। আমি এখন সাসেক্সে ক্রিকেট খেলছি এবং এটাতেই আমার মনোযোগ।” শ্রদ্ধার সঙ্গে নতুন ধর্মের নিয়ম কানুন পালন করবেন বলে জানান পার্নেল। একই সঙ্গে তার প্রতি আগ্রহ থাকায় ভক্তদের ধন্যবাদ জানিযেছেন তিনি।

দক্ষিণ আফ্রিকা দলের ম্যানেজার মোহামেদ মোসাজি, যিনিও একজন মুসলিম। পার্নেলকে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করানোর পেছনে সতীর্থ হাশিম আমলা বা ইমরান তাহিরের কোনো হাত নেই বলে জানিয়েছেন মোসাজি। তিনি বলেছেন, “কয়েক মাস আগেই ওয়েন ইসলাম অনুসরণ করার সিদ্ধান্ত নিযেছিল। এটা তার সিদ্ধান্ত, কিন্তু আমি নাম পরিবর্তনের ব্যাপারে কিছু জানি না।”

নাম গোপন রাখার শর্তে বেশ কয়েকজন খেলোয়াড় জানান, নতুন ধর্ম অনুসরণের ব্যাপারটি পার্নেল খুব গুরুত্বের সঙ্গে নিয়েছিলেন। তারা আরো জানান, ভারতীয় প্রিমিয়ার লিগ টুর্নামেন্ট শুরুর পর থেকে মুসলমানদের জন্য নিষিদ্ধ কোনো অ্যালকোহল স্পর্শ করেননি পার্নেল।

২০০৯ সালে অভিষেক হওয়ার পর থেকেই নিজেকে কঠোর পরিশ্রমের মধ্যে রেখেছেন পার্নেল। এর আগে ২০০৮ সালে অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে দক্ষিণ আফ্রিকাকে নেতৃত্ব দিয়ে বোর্ডের নজরে আসেন এ পেসার। মাত্র ২০ বছর বয়সে সর্বকনিষ্ঠ খেলোয়াড় হিসেবে দক্ষিণ আফ্রিকার কেন্দ্রীয় চুক্তিতে আসেন পার্নেল। পাকিস্তানের ক্রিকেটার ইউসুফ ইউহানার (মোহাম্মদ ইউসুফ) পর ওয়েন পার্নেল দ্বিতীয় ক্রিকেটার যিনি ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করলেন।
source: http://goo.gl/bYBCfw

মতামত দিন