জীবন দর্শন

কষ্ট না করলে কেষ্ট মেলে না

কেউ কাউকে সাধনার সাথে সফলতার পথে অগ্রসর হতে উৎসাহ-উদ্দীপনা দিতে বলে, ‘কষ্ট না করলে কেষ্ট মেলে না।’ তার এ বাক্য বলার উদ্দেশ্য হল, জীবনে সফলতা ও বড় কিছু অর্জন করতে হলে সাধনা ও কঠোর পরিশ্রমের কোনো বিকল্প নেই।

এ বাক্যের উদ্দেশ্য ঠিক থাকলেও শব্দগত কিছু আপত্তি রয়েছে। ‘কেষ্ট’ হল হিন্দুদের দেবতা কৃষ্ণ এর আঞ্চলিক রূপ।[১] এ হিসেবে এ বাক্যের শব্দগত অর্থ দাঁড়ায়, হিন্দু দেবতা কৃষ্ণকে পেতে হলে সাধনা ও কঠোর পরিশ্রমের কোনো বিকল্প নেই।

কোনো মুসলিম হিন্দু দেবতা কৃষ্ণকে পাওয়ার জন্য সাধনা ও কঠোর পরিশ্রম করার দূরের কথা তাতে বিশ্বাস-ই করতে পারে না। তাই এ বাক্য বলার কোনো সুযোগ নেই। এর স্থানে অন্য কোনো বাক্য বলতে হবে; যা ইসলাম পরিপন্থি নয়।

প্রশ্ন হতে পারে, আমরা তো হিন্দু দেবতা কৃষ্ণকে পাওয়ার উদ্দেশ্যে এ বাক্য বলি না। তাহলে সমস্যা কোথায়?

রাসূলুল্লাহ স. এর নিয়ম ছিল, তিনি যদি কারো অসুন্দর নাম দেখতেন, তা সুন্দর নামের মাধ্যমে পরিবর্তন করে দিতেন। কোনো দেব-দেবির নামে কারো নাম থাকলে তা বাদ দিতে বলতেন। এ হিসেবে হিন্দু-মুশরিকদের দেব-দেবির নাম থাকলে অবশ্যই পরিবর্তনযোগ্য।

তথ্যসূত্র :

১. বাংলা একাডেমী ব্যবহারিক বাংলা অভিধান, পৃ. ২৮৮, পঞ্চদশ পুনমুদ্রণ জানুয়ারি ২০১২; বাংলা একাডেমী বিবর্তনমূলক বাংলা অভিধান, পৃ. ৬৬১, প্রথম প্রকাশ জুন ২০১৩

যেসব_কথা_যায়_না_বলা– (পর্ব : ৪ )

Source

মতামত দিন