ইসলামিক গল্প

একটি দরজা হলেও খুলে রাখুন!

একটি দরজা হলেও খুলে রাখুন!

(اترك بابا واحدا)

ইমাম আহমাদ বিন হাম্বাল রহিমাহুল্লাহর জীবনে ঘটে যাওয়া একটি ছোট্ট ঘটনা। তিনি বলেন: আমি মাঝেমাঝেই রাতের বেলা রাস্তায় চলাচল করতাম। হঠাৎ একরাতে দেখতে পেলাম একজন চোর নির্জন রাতে লোকজনের জিনিস পত্র চুরি করছে। লোকটিকে দেখার ফলে তার চেহারা আমি ভুলি নি। কিছুদিন পর দেখতে পেলাম সেই চোর মসজিদে সালাত আদায় করছে। তখন সেই রাতের অন্যায় কাজটি চোখে ভেসে উঠায় কাল ক্ষেপণ না করে তার কাছে গেলাম।

তাকে বললাম: তোমার এই সম্পর্ক বা যোগসাজশ (সালাত) মাওলার সাথে তৈরি হবে না, তোমার এই সালাত আল্লাহ্ কবুল করবেন না। কেননা তুমি এমন এমন কাজ কর। (বিশ্লেষকগণ বলেছেন, ইমাম আহমাদ বিন হাম্বাল রহিমাহুল্লাহ চোরকে নসিহতের নিয়তে এভাবে বলেছিলেন)

তখন চোরটি বলল: হে ইমাম! জেনে রাখুন, আমার মাঝে আর আমার আল্লাহর মাঝে অনেক গুলো দরজা বন্ধ হয়ে আছে ঠিকই কিন্তু আমি পছন্দ করি আমাদের দুজনের মাঝে অন্তত একটি দরজা খোলা থাক। ইমাম আহমাদ বিন হাম্বাল রহিমাহুল্লাহ বলছেন: এই সব কথাবার্তার অল্প কয়েক মাস পর আমি হজ্ব আদায় করতে মক্কায় গেলাম। তাওয়াফ করার সময় হঠাৎ এক ব্যক্তিকে দেখতে পেলাম যে কাবার গেলাফ ধরে ঝুলছে আর এভাবে দোআ করছে:

تبت إليك، ارحمني،لن أعود إلى معصيتك،،،

” হে আল্লাহ্, আপনার কাছে ফিরে এসেছি, আমাকে রহম করুন, আমি আর কখনোই আপনার অবাধ্যতায় ফিরবো না,,”

অতপর আমি এই তওবাকারী ও সাহায্য প্রার্থনাকারী লোকটিকে পর্যবেক্ষণ করতে থাকলাম। অবশেষে তাকে পেয়েও গেলাম। দেখতে পেলাম সে গতকালের ঐ লোকটি যে চুরি করতো আর আজকে সে অনুতপ্ত তওবাকারী। তার এই প্রত্যাবর্তন দেখে আমি মনে মনে

বললাম:

” ترك بابا مفتوحا ففتح الله له كل الأبواب “

“সে শত পাপের মধ্যে থেকেও একটি দরজাকে খুলে রেখেছিল বিনিময়ে আল্লাহ্ তার সবগুলো দরজাই খুলে দিলেন”।

শিক্ষা:

আপনি যত বড়ই পাপী আর অবাধ্য হোন না কেন কখনোই আপনার ও আল্লাহর মাঝের সবগুলো দরজা বন্ধ করে দিবেন না। হতে পারে আপনার একটি সৎ আমলের দরজাই বাকি সব বন্ধ দরজা গুলোকে খুলে দিতে পারে ফলে আপনি নাজাত পেয়ে ধন্য হবেন।

(فن إدارة الموافق:٢٣٢

المصدر مبهم ولا يوجد إلا هذا)

লোকমান ত্রিশালী

মদিনা ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়।

লিংক

মতামত দিন