ইসলামের ইতিহাস সাম্প্রতিক বিষয়

স্লোভেনিয়ায় প্রথম মসজিদ!

আবেদনের ৪৪ বছর পর স্লোভেনিয়ায় প্রথম মসজিদ!

ইউরোপের দেশ স্লোভেনিয়ায় প্রথমবারের মতো একটি মসজিদ নির্মাণ শুরু হচ্ছে। মসজিদ নির্মাণের আবেদন করার ৪৪ বছর পর এর নির্মাণ কাজের শুরু হতে যাচ্ছে।

আল-জাজিরা জানায়, প্রধানমন্ত্রী আলেঙ্কা ব্রাতুসেক শনিবার রাজধানী লিউজিয়ানায় মসজিদটির ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করেছেন।

ভিত্তিপ্রস্তর অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, ‘ইসলাম ছাড়া ইউরোপ সাংস্কৃতিকভাবে সমৃদ্ধ হতে পারে না।’

মসজিদটিকে ‘সকল প্রকার ধর্মীয় অসিষ্ণুতার বিরুদ্ধে প্রতীকি জয়’ বলেও মন্তব্য করেন প্রধানমন্ত্রী।

ভিত্তিপ্রস্তর অনুষ্ঠানে প্রায় ১০ হাজার লোক যোগদান করেন। এতে লিউজিয়ানার মেয়র জোরান জানকোভিচ এবং কাতারের একজন মন্ত্রীও উপস্থিত ছিলেন। মসজিদটি নির্মাণে অর্থায়ন করেছে কাতার সরকার।

অনুষ্ঠানে স্লোভেনিয়ার মুসলিম সম্প্রদায়ের শীর্ষ নেতা মুফতি নেদজাদ গ্রাবাস বলেন, ‘লিউজিয়ানায় মসজিদ নির্মাণ শুরু করতে পেরে আমরা আনন্দিত। এরফলে শহরটি বৈচিত্র্যময় সমাজে পরিণত হবে।’

নভেম্বরে মসজিদ নির্মাণ শুরু হবে এবং শেষ হবে ২০১৬ সালের শরতে। একটি মুসলিম কালচারাল সেন্টারসহ মসজিদটি নির্মাণে ব্যয় হবে ১ কোটি ৬০ লাখ ডলার (প্রায় ১২৫ কোটি টাকা)। কাতার সরকার এর ৭০ ভাগ খরচ বহন করবে।

মসজিদটি নির্মাণের জন্য যে বছর আবেদন করা হয়, সেই বছরের জন্ম নেয়া সাহরা কাচার বলেন, ‘এটাই এখন আমার পৃথিবী। আমরা এখন নামাজের জন্য একটি উপযুক্ত জাগয়া পাবো। এর আগে আমরা বিভিন্ন পাবলিক হলে নামাজ পড়তাম।’

দীর্ঘ সংগ্রাম
মসিজদ নির্মাণের আবেদন বছরের পর বছর ঝুলিয় রেখেছিলেন সরকারি কর্মকতারা। ২০০৪ সালে প্রায় ১২ হাজার লোক মসজিদ নির্মাণের জন্য গণভোটের আবেদন জানিয়ে চিঠি লেখেন।

কিন্তু ধর্মীয় স্বাধীনতার অজুহাত দেখিয়ে স্লোভেনিয়ার সাংবিধানিক আদালত ওই আবেদন খারিজ করে দেয়।

স্লোভেনিয়ার অধিবাসীদের ২০ লাখ ক্যাথলিক খ্রিস্টান এবং ৫০ হাজার মুসলমান।

সূত্র

মতামত দিন