অন্যান্য

Epub কি? কেন পড়বেন, কিভাবে পড়বেন?

ইন্টারনেটের সাথে যুক্ত থাকা বই পড়ুয়ারা ebook-এর সাথে পরিচিত। অনেকে কাগজের বই পড়ার পাশাপাশি PDF বা ebook পড়ে থাকেন। কিন্তু আমার মনে হয় অনেক পাঠকই এই PDF বইয়ের প্রতি বিরক্ত বিশেষ করে যারা মোবাইলে বই পড়ে থাকেন। PDF বই পড়ার সবচেয়ে বড় সমস্যা হলো Zoom করে বই পড়তে হয়। তাছাড়া Edit বা Search এর সুবিধা না থাকা। সমস্যা লিখলে এখানে PDF বইয়ের ব্যাপক সমস্যা লেখা যায়, আমি সেগুলো না লিখে একটু পরে আপনাদের সাথে অন্য ফরমেটের ebook Epub version এর সাথে পরিচয় করিয়ে দিচ্ছি। নিশ্চয়ই, আপনারা অনেকেই এই ফরমেটের ebook এর সাথে পরিচিত। যারা পরিচিত তারা জানেন Epub version আর PDF ভার্সন এর মধ্যে কতটা পার্থক্য ebook এর ক্ষেত্রে। আর যারা এখনো এ বিষয়ে জানতে পারেন নি আশা করি এই পোষ্টের মাধ্যমে আপনি ও জানতে পারবেন।

=> যাইহোক উপরে আমি PDF version ebook এর কয়েকটি সমস্যা বলেছি, আসলে এগুলোকে আমরা সমস্যা না বলে Epub version ebook এর চেয়ে PDF version এর সীমাবদ্ধতা বলতে পারি। PDF এর ও ভালো কিছু সুবিধা রয়েছে সেগুলো এখানে বর্ননা করার প্রয়োজন নেই কারণ আমরা সকলেই ebook বলতে PDF ই ব্যবহার করে আসছি। তাই PDF এর সুবিধা ও সীমাবদ্ধতা সম্পর্কে কম বেশি ধারনা রাখি।

×× আজকে আপনি এই পোষ্টটি পুরোপুরি মনে যোগদিয়ে পড়ার পর সিদ্ধান্ত নিতে পারেন আমরা কি ebook বলতে শুধু PDF version ই পড়বো নাকি অন্য কোন ভার্সন ট্রাই করে দেখতে পারি ?

=> Epub কি? কেন পড়বেন, কিভাবে পড়বেন?

Epub একটি জনপ্রিয় ফাইল ফরম্যাট। আমরা যেমন পিডিএফ ফাইল ফরম্যাটের মাধ্যমে আজ মোবাইলে বই পড়ছি তেমনি Epub ফাইল ফরম্যাটের মাধ্যমে মোবাইল, ট্যবলেট কিংবা পিসিতে বই পড়া যায়। আজ পর্যন্ত যে সকল ডিভাইসে পিডিএফ বই পড়া যাচ্ছে সেই সকল ডিভাইসেই ইপাব বইও পড়া যায়। বরং অনেক ডিভাইস আছে যে গুলোতে পিডিএফ বই পড়া যায় না কিন্তু ইপাব পড়া যায়।

=> Epub কি?

ইপাব হলো- ইলেকট্রনিক পাবলিকেশন। সহজ অর্থে আমরা যাকে ইবুক বলে থাকি। যে বইগুলো ইলেকট্রনিক যন্ত্রাংশে পড়ার জন্য প্রকাশ করা হয় সেই বইগুলোকেই ইবুক বলে।

=> Epub পড়তে কি আলাদা সফ্টওয়্যার লাগে?

হ্যাঁ,অবশ্যই। তবে PDF বই পড়ার জন্য যেমন moon+reader, Librera রিডার ব্যবহার করেন এর মাধ্যমেই Epub বই পড়া যায়। এ বিষয়ে আমি একটু পরে বিস্তারিত বলছি।

=> Epub এর সুবিধা কি?

ক) Epub বই ডিভাইসের সাথে সামঞ্জস্য বজায় রাখতে পারে। অর্থাৎ বই পড়ার সময় জুম করে বই পড়তে হয় না। ডিভাইসের স্ক্রিন ছোট কিংবা বড় কোন কিছুতেই কোন সমস্যা হয় না।

খ) Epub বইয়ের পছন্দের কোন লাইন মার্ক করে রাখা যায়। সেটাতে কমেন্ট/নোট যুক্ত করা যায়। পরবর্তীতে শুধু মার্ক করা অংশ এক্সপোর্ট করে রাখা যায়।

গ) বই থেকে যতটুকু খুশি লেখা কপি করা যায় এবং যেখানে খুশি সেখানে শেয়ার করা যায়।

ঘ) লেখার ফন্ট সাইজ পরিবর্তন করা যায়। ফন্টের রং পরিবর্তন করা যায় এমনকি বইয়ের ব্যাকগ্রাউন্ড কালার পরিবর্তন করা যায়।

ঙ) পড়তে ইচ্ছে না হলে অডিও বইয়ের মত শুনা যায়। ডে/নাইট রিডিং মুড সুবিধা পাওয়া যায়।

চ) সার্চের মাধ্যমে খুব সহজেই তথ্য খুঁজে বের করা যায়। নির্দিষ্ট পাতা বুকমার্ক করে রাখা যায়।

ছ) Epub খুব হালকা বলে কম জায়গায় অনেক বেশি বই রাখা যায়। এতে মেমোরির অপচয় কম হয়।

জ) যারা চোখে কম দেখেন কিংবা ছোট লেখা পড়তে সমস্যা হয় তাদের জন্য ইপাব এক যুগান্তকারী সমাধান। বিশেষ করে যারা বয়সে বৃদ্ধ কিন্তু ডিজিটাল ডিভাইসে বই পড়তে আগ্রহ আছে তাদের জন্য ইপাব সত্যিই একটা অসাধারন সমাধান।

ঞ) এছাড়া আরও অনেক সুবিধা আছে যা আপনি ব্যবহার করলে বুঝতে পারবেন।

∆∆ একটা কথা বলে রাখছি Epub বই ব্যবহারের ক্ষেত্রে আপনি সবচেয়ে আনন্দ পাবেন moon+reader pro app ব্যবহার করে পড়লে। নিচে আমি moon+reader pro version এর ফ্রী ডাউনলোড লিংক শেয়ার করছি। আর ব্যবহারের পদ্ধতি বলে দিয়াছি। moon+reader pro ব্যবহার সম্পর্কে যারা অভিজ্ঞ তাদের ও পড়ে দেখতে অনুরোধ রাখছি।

∆∆ কিভাবে পড়বেন Epub বই?

=> এন্ড্রোয়েড-এর জন্যঃ

Android ব্যবহারকারীদের জন্য অনেকগুলো এ্যাপস আছে Playstore এ, যেমনঃ Lithium Epub Reader, eReader Prestigio Reader, moon+reader ইত্যাদি। এগুলোর মধ্যে যেকোন একটি ডাউনলোড করে নিয়ে খুব সহজে Epub বই পড়া যায়। তবে আমার পরামর্শ হলো, আপনি যদি খুব সহজেই Epub বই পড়তে চান তাহলে Lithium EPUB Reader অথবা eReader Prestigio Reader ব্যবহার করুন। আর যদি Epub বইয়ে কাগজের বইয়ের আবহ পেতে চান এবং চমৎকার সব ফিচার এর মাধ্যমে জ্ঞানের রাজ্যে প্রবেশ করতে চান তাহলে moon+reader pro version ব্যবহার করুন।পোষ্টের শেষের দিকে এ বিষয়ে বলা হবে।

=> Apple ডিভাইসের জন্যঃ

iphone কিংবা ipad এ Epub বই পড়ার জন্য ibooks এ্যাপ ব্যবহার করুন।

=> Windows Phone এর জন্যঃ

আপনারা যারা windows phone ব্যবহার করছেন তারা এ্যাপস স্টোর থেকে tucan reader লিখে সার্চ দিন।

=> কম্পিউটারের জন্যঃ

Sumatra PDF একটি অসাধারন পিডিএফ রিডার। এইটা পিডিএফ রিডার হলেও এর সাহায্যে Epub ফাইল খুব চমৎকার ভাবে পড়া যায়। নিচের লিঙ্ক থেকে সফটওয়্যার টি ডাউনলোড করে নিন।
https://www.sumatrapdfreader.org/download-free-pdf-viewer.h…

∆∆ এবার বলছি Moon+Reader Pro version এর মাধ্যমে Epub বই ব্যবহারের কিছু পদ্ধতিঃ

১) প্রথমে Moon+ Reader pro version ডাউনলোড করে নিন এবং ওপেন করুন। MediaFire link: Moon+ Reader Pro 4.5.5b_455002.apk – https://www.mediafire.com/download/b204c4x95cdhala 
(ডাউনলোড হলে ইনষ্টল করে নিন। ১ নং ছবি)


২) এখন মোবাইল স্ক্রীন হতে এ্যাপটি ওপেন করুন। ওপেন করার সময় যে পারমিশন চায় সেগুলো alloy করুন, এবার Recent list এ ক্লিক করুন। (২ নং ছবি)

৩) বইয়ের উপর ক্লিক করুন। (৩ নং ছবি)

৪) এরকম আসবে। (৪ নং ছবি)

৫) options এ ক্লিক করুন এরকম আসবে। (৫ নং ছবি)

৬) ওপেন হওয়া বইয়ের উপর একবার হালকা টাচ করুন, এরকম আসবে। (৬ ও ৭ নং ছবি)

৭) এখন আপনার পছন্দের অপশন গুলোতে টিক চিহ্ন দিয়ে নিন। আমি পরামর্শ দিব উপর হতে screen orientation এর পর Speek অথবা Autoscroll এর যেকোন একটা আপনার ইচ্ছে হলে ২টা তেই টিক চিহ্ন দিতে পারেন। তবে Day/Night Mode এ টিক চিহ্ন দিতে হবে না। কারন এর কাজটা Brightness অপশন দিয়ে আরও ভালো ভাবে করা যায়। লক্ষ্য করুন একটু নিচে Brightness নামে একটি অপশন রয়েছে।

Speek, Autoscroll এর পর Bookmarks অপশনে টিক চিহ্ন দিয়ে দিন। Bookmarks অপশনটি ব্যবহার করে আপনি আপনার ইচ্ছা মত Epub বইয়ে বুকমার্ক করে রাখতে পারবেন। বইয়ের মধ্য হতে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় গুলো Bookmarks করে রাখা কতটা প্রয়োজন একজন ভালো পাঠক গভীরভাবে উপলব্ধি করে থাকে। কিভাবে আপনি এই বুক মার্ক করে রাখবেন এবিষয়ে সামনে লেখায় আসবে। Bookmarks পর দেখতে পাচ্ছেন Chapters আপনি এই অপশনটি টিক চিহ্ন দিন। Chapters অপশনটি সূচিপত্র এর মত দেখা যায়। এখান হতে আপনি দ্রুত বইয়ের পছন্দের যায়গায় যেতে পারবেন।

এরপর আপনি Brightness অপশনটি টিক চিহ্ন দিয়ে দিন। এই অপশনটির মাধ্যমে আপনি আপনার মোবাইলের Brightness বাড়াতে কমাতে পারবেন। এটার ব্যবহার সম্পর্কে আরও ধারনা আপনি এ্যাপ ব্যবহার করার সময় Brightness অপশনে ক্লিক করে জানতে পারবেন। এবার আপনি Font Size, Search, Options, Shutdown টিক চিহ্ন দিয়ে Ok ক্লিক করুন। আপনার ইচ্ছে হলে বাকি অপশন গুলোতে ও টিক চিহ্ন দিতে পারেন। নিচের দিকে যে চারটি অপশনে টিক চিহ্ন দেওয়া হয়নি এর মধ্যে তিনটি অপশন আপনি Options অপশনটিতে ক্লিক করে পেয়ে যাবেন। আর বাকি একটি অপশন Allow tilt divice to trun pase এর তেমন কোন প্রয়োজন নেই। আপনার ইচ্ছে হলে এ্যাপের ভিতরের সেটিং হতে দেখে নিতে পারবেন।

৮) Ok করার পর দেখুন এরকম আসছে। (৮ নং ছবি)

৯) এখন আপনি উপরের বাম দিকের তিনটি ডট এ ক্লিক করুন অথবা নিচের বাম পাশের Shutdown অপশন এর ডানের Options অপশনটিতে ক্লিক করুন। যে কোন একটি তে করলেই হবে। আমি থ্রী ডট এ করিলাম।

১০) এরকম আসবে। (৯ নং ছবি)

১১) Visual Options এ ক্লিক করুন।

১২) এরকম আসবে। (১০ নং ছবি)

১৩) এখানের অপশন গুলোর ব্যবহার আপনি ভালোভাবে ট্রাই করে দেখতে পারেন। আমি ২/১ টা বলছি আপনি এই অপশনটির নিচে চলে যান, এখানে। (১১ নং ছবি)

১৫) Page Flip Animation অপশনের শেষে none লেখা যায়গায় ক্লিক করে (Apple) Real Page… এই অপশনটি সিলেক্ট করে দিন। এতে আপনার বইয়ের পাতা গুলো হার্ড কপি বইয়ের মত উল্টাবে। এ অপশনটি আপনার ভালো না লাগলে অন্যগুলো ব্যবহার করে দেখুন। Page Flip Animation এর উপরে save as theme ও load as theme অপশন দুটি ব্যবহার করে দেখতে পারেন। এছাড়া আপনি যখন থ্রী ডট ক্লিক করে ছিলেন তখন ওপেন হওয়া অপশন গুলোর ৪ নম্বর অপশনটি ছিল Themes সেখান হতে আপনি Themes সম্পর্কে ধারণা লাভ করতে পারবেন। আপনি ঐ অপশন গুলো ব্যবহার করে Theme সম্পর্কে বিস্তারিত ধারণা নিন এবং আপনার চোখের সাথে সমন্বয় করে Theme চয়েস করে রাখুন।

১৬) Visual Options এর পর আপনি Control Options এ যান। আপনি থ্রী ডট এ ক্লিক করে অথবা অন্য যেকোনো ভাবে যেতে পারেন। Control Options যাওয়ার পর আপনি ওপেন হওয়া অপশন গুলো আপনার চাহিদা মত সেটিং করে নিন। আমি পরামর্শ দিব Control Options ওপেন করে একেবারে নিচে চলে যান এখানে দেখবেন mini status bar এই অপশনটি আমার কাছে খুব গুরুত্বপূর্ণ। আপনিও অপশনটি ভালোভাবে দেখে নিন।

১৭) Control Options এর পর আপনি Miscellaneous অপশনে যান। Miscellaneous অপশন ওপেন করার পর একটু নিচের দিকে টানুন দেখবেন এখানে EPUB/MOBI/FB2/CHM/UMD নামে একটা অপশন আছে এই অপশনটির Disable CSS styles অপশনে টিক চিহ্ন দিয়ে দিন। এখানে অবশ্যই টিক চিহ্ন দিতে হবে না হলে Epub বই পড়ার সময় অক্ষর ভাঙ্গা ভাঙ্গা আসতে পারে। এবার লক্ষ্য করুন Disable CSS styles এর বাম পাশে সেটিং এর মত একটা চিহ্ন আছে ওখানে ক্লিক করুন। ক্লিক করার পর ৮ ঘর বিশিষ্ট একটা অপশন আসবে এখান হতে আপনি ৫ (নম্বর দেওয়া নাই উপার হতে গননা করে) নম্বর ঘরে অবশ্যই টিক চিহ্ন দিয়ে ওকে করে দিবেন। সাথে আপনি ১নম্বর ঘরে ও টিক চিহ্ন দিয়ে রাখতে পারেন। ইচ্ছে হলে সবগুলো ঘরে টিক চিহ্ন দিয়ে রাখতে পারেন। মুল কথা হলো এই অপশন গুলো আপনি ব্যবহার করে Epub বই পড়ার সময় বইয়ের লেখায় আঁকার/আকৃতি পরিবর্তন করতে পারবেন। কখনো ভাঙ্গা অক্ষর আসলে এই অপশন গুলো টিক চিহ্ন দিয়ে/আবার টিক চিহ্ন উঠিয়ে দিয়ে ভাঙ্গা অক্ষর ঠিক করে নিতে পারবেন।

এবার Miscellaneous অপশনের নিচের দিকে চলে যান। দেখুন সেখানে Page turn sound নামে একটা অপশন আছে ওটার উপর টিক চিহ্ন দিয়ে দিন। এখান আপনি বইয়ের পাতা উল্টানোর সময় হার্ডকপি বইয়ের পাতা উল্টানোর শব্দ শুনতে পাবেন। Page turn sound এর বাম পাশে সেটিং এর মত একটা চিহ্ন আছে ওখানে ক্লিক করে Page turn sound 2 সিলেক্ট করতে পারেন।

Miscellaneous অপশনের বাকি অপশন গুলো আপনার ইচ্ছে মত সেটিং করে নিন। থ্রী ডট এ ক্লিক করার পর আরও যে মেইন মেইন অপশন গুলো আসে সেগুলো আপনি ভালো করে দেখে দিবেন। যাতে করে ইলেক্ট্রনিক ডিভাইসে আপনার বই পড়া হয়ে উঠবে আনন্দময়।

×× আর একটু কথা আপনি যদি Moon+reader এ PDF বই পড়েন তাহলে থ্রী ডট এ ক্লিক করলে উপরে প্রথম যে অপশন টা আসবে তা হলো PDF Options নামে। আপনি ওখানে PDF বইয়ের জন্য আলাদা কিছু সেটিং পাবেন আপনার ইচ্ছে মত সেটিং করে নিন।

∆∆ এখন দেখুন moon+reader ব্যবহার করে Epub বই ব্যবহারের সুবিধা গুলোঃ

১) আপনি একটা Epub বই ওপেন করুন।
এর পর বইয়ের লেখার উপর হালকা চেপে ধরে লেখা সিলেক্ট করুন এরকম আসবে। (১২ নং ছবি) 
আপনার ইচ্ছে মত লেখা সিলেক্ট করে Highlight করে রাখতে পারবেন। এই Highlight অপশনের বেশ কিছু ফিচার আছে আপনি ব্যবহার করলে দেখতে পারবেন।

২) হাল্কা চেপে ধরে লেখা সিলেক্ট করার সময় দেখুন Copy নামের একটা অপশন আছে। Epub বই ব্যবহারের সুবিধা হলো এখান হতে ইচ্ছে মত লেখা সিলেক্ট করে হুবাহু অন্য কোন যায়গায় ব্যবহার করা যায়। এছাড়া একটা মজার ব্যাপার হলো ধরুন আমি একটা আরবি অথবা ইংলিশ Epub বই পড়তে আছি। এর মধ্যে এমন কিছু শব্দ আসছে যার অর্থ আমার জানা নেই এখন আমি এর অর্থ পাব কোথায় ? এজন্য একটি কাজ সহজেই করা যায় বর্তমানে এমন কিছু অফলাইন ডিকশনারি আছে যাতে এমন সব ফিচার আছে যা সত্যিই অবাক হওয়ার মত। এধরনের ডিকশনারিতে একটা ফিচার আছে যেটি আপনি ওপেন করে রাখলে আপনার মোবাইলে কোন কিছু Copy করলে সাথে সাথে এর অর্থ বের হয়ে আসবে। এজন্য বেশ কিছু ডিকশনারি রয়েছে যেগুলোর কিছু কিছু সুবিধা Google translate এর চেয়ে ভালো। যাই হোক এজন্য আপনি বেশি ঘাঁটাঘাঁটি না করে সহজেই Google translate ব্যবহার করতে পারেন। Google translate এর সেটিং এ একটা অপশন আছে যেটা চালু রাখলে আপনি Epub বই হতে কোন কিছু কপি করলে সাথে সাথে সেটার অর্থ বের হয়ে আসবে। আপনি চেষ্টা করলে এ বিষয়ে আরও জানতে পারবেন।

৩) হাল্কা চেপে ধরে লেখা সিলেক্ট করার সময় একটা অপশন আসে Note এই note অপশনটিতে আপনি কোন শব্দ বা বাক্য সিলেক্ট করে তার উপরে নোট করে রাখতে পারবেন। আপনি ইচ্ছে করলে সিলেক্ট কৃত শব্দে বা বাক্যের উপর অন্য কোন তথ্য অথবা লিংক সংগ্রহ করে এই note অপশনে রাখতে পারবেন। কোন বিষয়ের উপর গভীরভাবে পর্যবেক্ষণ করতে চাইলে Note করে রাখা খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

৪) হাল্কা চেপে ধরে লেখা সিলেক্ট করার সময় আর একটা অপশন আছে তা হলো Dictionary এই ডিকশনারি কোন কাজে ব্যবহার করা হয় তাতো সকলেই জানি। এখানে Dictionary ব্যবহার করা যাবে ইচ্ছে মত। এখানে আপনি Dictionary ব্যবহার না করে অন্য কোন শিক্ষনীয় মাধ্যম ব্যবহার করতে পারেন। যেমন উইকিপিডিয়া বা এধরনের অন্য কিছু। Dictionary অপশনে আমাদের ইচ্ছে মত Dictionary, উইকিপিডিয়া বা এ ধরনের অন্য কিছু ব্যবহারের জন্য আমাদের যেতে হবে More অপশনে।

৫) হাল্কা চেপে ধরে লেখা সিলেক্ট করার সময়ে যে অপশন গুলো আসে তার শেষ অপশন হলো More, এই More অপশনটিতে ক্লিক করলে বেশ কিছু অপশন দেখতে পাবেন। আপনার ইচ্ছে মত সেগুলো ব্যবহার করুন। এই More অপশনে ক্লিক করার পর যে নতুন অপশন গুলো আসে তার সর্বশেষ টা হলো Customize… অপশনটি। এই Customize অপশনে ক্লিক করে আপনি যে অপশনটিতে প্রবেশ করবেন সেখান হতে আপনি পছন্দ মত Dictionary বা অন্য যা প্রয়োজন সেটা সিলেক্ট করে নিন। এখানে ২টি বিষয় সিলেক্ট করতে পারবেন। এখন সিলেক্ট কৃত Dictionary বা অন্য কিছু Dictionary অপশনে গিয়ে ব্যবহার করতে পারবেন।

সবশেষে যে কথা আপনি যখন Epub বই পড়ার সময় Highlight, Note করবেন তা অবশ্যই মাঝেমধ্যে ব্যাকআপ রাখবেন। কিভাবে রাখবেন আপনি একটু ঘাঁটাঘাঁটি করুন পেয়ে যাবেন। সত্যি বলতে এর ব্যাকআপ অপশনটি খুবই ভালো।

লেখাটি সংগ্রহ করা হয়েছে এখান থেকে।

শীঘ্রই আসছে বাংলা ইসলামিক বইয়ের ইপাব সংগ্রহশালা।

মতামত দিন